what is after madhymik
Editorial (সম্পাদকীয়)

মাধ্যমিক শেষ। এরপর …?



গত ২০শে ফ্রেব্রুয়ারী শেষ হল পশ্চিমবঙ্গের মাধ্যমিক পরীক্ষা।

হাফ ছেড়ে বাঁচল বাংলার এগারো লক্ষ ছাত্রছাত্রী। জীবনে প্রচুর পরীক্ষার সম্মুখীন হতে হলেও, সবার কাছে মাধ্যমিক পরীক্ষা একটি দাগ রেখে যায়।শুধু পড়াশোনা নয়, মাধ্যমিক পরীক্ষা ছাত্রছাত্রীদের কাছে একটা গণ্ডীর মতো; মাধ্যমিক শেষ মানেই ‘আমি বড় হয়ে গেলাম’।

 

এই পরীক্ষা ছাত্রছাত্রীদের কাছে আরো একটা আনন্দের ব্যাপার।

কারণ মাধ্যমিকে বাধ্যতামূলক ভাবে সাতটি বিষয় পড়তে হয়, ধরুন কোন ছাত্রীর ভূগোল পড়তে মোটে ভালো লাগে না কিন্তু ভৌত বিজ্ঞান তার চমৎকার লাগে, বা ধরুন কোন ছাত্রের জীবন বিজ্ঞান বই দেখলেই কান্না পায় কিন্তু ইতিহাস তার নয়নের মণি। কিন্তু মাধ্যমিকের বাধ্যবাধকতায় তাকে সাতটি বিষয়ই সমান গুরুত্ব দিয়ে পড়তে হয়।

JUMP whats-app subscrition

মাধ্যমিকের গণ্ডী পেরনোর পরে উচচ মাধ্যমিকে কিন্তু সুযোগ তার হাতে – এবার সে তার প্রিয় বিষয়গুলির সাথে গাঁটছাড়া বাঁধতে পারে আবার অপছন্দের বিষয়গুলিকে চিরতরে বিদায় জানাতে পারে। এখানে একটা কথা বিশেষ ভাবে মনে রাখা দরকার উচ্চ মাধ্যমিকের বিষয় নির্বাচন ছাত্রছাত্রীর কেরিয়ারের জন্য একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার। এখানে  আমি মাধ্যমিকে ৮০ শতাংশ নম্বর পেয়েছি তাই আমি বিজ্ঞান পড়বো আর আমি একটু কম পেয়েছি বলে আর্টস, এটা কিন্তু আত্মহত্যার সামিল।  উচ্চ মাধ্যমিকের বিষয় নির্বাচনের ক্ষেত্রে মাধ্যমিকের নম্বর যেমন একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ঠিক তেমনই গুরুত্বপূর্ণ নীচের দিকগুলোর দিকে খেয়াল রাখা।

–    ছাত্র / ছাত্রীর কোন কোন বিষয়গুলি পড়তে ভালো লাগে

–    ভবিষ্যতে সে কি হবার স্বপ্ন দেখে

–    আগামী পাঁচ / সাত বছর পরে তৎকালীন কাজের বাজারের কি অবস্থা থাকবে

এদের মধ্যে তৃতীয় পয়েন্টটি অধিক গুরুত্বপূর্ণ। সময় খুব দ্রুত বদলাচ্ছে।

২০০১ সালের গোড়ার দিকে যখন পশ্চিমবঙ্গে প্রথম টেকনিক্যাল ইউনিভার্সিটি (তৎকালীন WBUT) খোলা হয়, তখন একলাফে ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ার ঝোঁক অনেকটাই বেড়ে যায়। সেই সময় প্রথমদিককার কলেজগুলো তো বটেই এমনকি পেছনের সারির কলেজের ছাত্রছাত্রীরাও ভাল ভাবে চাকরী পেতে থাকে। আজ পনেরো বছর পরে চিত্রটা অনেকটাই বদলেছে। ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ার ঝোঁক এখন অনেকটাই কমেছে এবং আগামী দিনে আরো কমবে। এর প্রধান কারণ ভবিষ্যতে সাধারণ কাজের সুযোগ আরো কমবে, মানুষকে সরিয়ে তার জায়গায় জায়াগা করে নেবে automation। তাই এখন থেকে লক্ষ্য সঠিক রাখলে ভবিষ্যতে ‘সব পড়া হয়ে গেল, এবার কি হবে’ এই কিংকর্তব্যবিমুঢ় অবস্থাকে পাশ কাটানো যাবে।

carreer counselling

আগামী কয়েকদিন ধরে প্রস্তুতি বিভাগে নিয়মিত প্রকাশিত হতে চলেছে উচ্চ মাধ্যমিকের বিষয় নির্বাচন।

ছাত্রছাত্রী ও অভিভাবকদের কাছে এই লেখাগুলোয় চোখ রাখার আবেদন জানাই। লেখাগুলি সরাসরি আপনার WhatsAppএ পাবার জন্য বিনামূল্যে JUMP ম্যাগাজিন WhatsApp subscription করতে পারেন। Subscribe করতে এই লিংকে ক্লিক করুন। 



Leave a Reply